দুঃখিনী শ্রীলঙ্কা

প্রকাশকাল |

১৯৭০ দশকে শ্রীলঙ্কা সমাজতান্ত্রিক গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা চালু করে। তা তিন দশকের গৃহযুদ্ধ আর রাজনৈতিক চড়াই উৎরাইয়ের পরও তা অনেক ক্ষেত্রে দারুণভাবে কার্যকর। বাতিকোলায় ইস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বক্তৃতা, সেমিনার, আর ক্লাসের ফাঁকে চা কফি আর খাবারের সময় ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারলাম গোটা শ্রীলঙ্কার স্নাতক আর স্নাতকোত্তর পর্যন্ত প্রতিটি ছাত্রছাত্রীর বিনামূল্যে থাকার ব্যবস্থার পাশাপাশি প্রত্যেকেই প্রতিমাসে পাঁচ হাজার রুপি বৃত্তি পেয়ে থাকে!

  • Comment 1

সন্ত্রাসবাদের ছোবল, রক্তাক্ত শ্রীলঙ্কা

প্রকাশকাল |

বছর তিনেক আগে এক সেমিনারে অংশ নিতে কলম্বো গিয়েছিলাম। দক্ষিণ এশিয়ার কোনো শহর যে এত সাজানো-গোছানো, এত পরিবেশবান্ধব, এত নিরাপদ হতে পারে, তা আমার কল্পনার বাইরে ছিল। এ অঞ্চলের সব শহরে যেহেতু পা পড়েনি, সুতরাং বলতে পারছি না- আর কোথায় কোথায় পথচারির পা জেব্রাক্রসিংয়ে পড়লেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে ওই ক্রসিংয়ের দিকে আসতে থাকা গাড়িগুলো থেমে যায়! কোন দেশে রাত সাড়ে ১১টায়ও প্রায়ান্ধকার পার্কে অসংখ্য নারী-পুরুষ নির্ভয়ে শিশুসন্তানকে নিয়ে হেঁটে বেড়াতে পারেন?

  • Comment 2

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও সংগ্রামে উদীচী

প্রকাশকাল |

মুক্তিযুদ্ধের প্রস্তুতি পর্বে ঢাকাসহ সারা দেশ যখন উত্তাল মিছিল-মিটিং, শ্লোগান, গণসংগীতে­- সেই উত্তাল সময়ে মানুষকে জাগানোর জন্য এবং বৈপ্লবিক আদর্শে অনুপ্রাণিত করার লক্ষ্যে কৃষক-শ্রমিকদের সভায়, রাস্তার মোড়ে মোড়ে ট্রাকের উপর চেপে উদীচীর শিল্পীকর্মীরা পরিবেশন করতো গণসঙ্গীত, প্রদর্শন করতো পথনাটক। বাংলার নিপীড়িত মানুষের প্রত্যক্ষ অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে পূর্ববাংলার মুক্তিসংগ্রাম মুক্তিযুদ্ধে রূপ নেয়। এই যুদ্ধের পটভূমি রচনায় শিল্পী-সাহিত্যিক-বুদ্ধিজীবী, শিক্ষক-সংবাদিকরাও নিরবচ্ছিন্ন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা পালন করেছেন।

  • Comment 0