গবেষণা ফেলোশিপ: একটি প্রস্তাবনা

প্রকাশকাল |

২০১৪ সালের অক্টোবর সেমিস্টারে বুয়েটের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে যে সকল ছাত্র দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চার বছর মেয়াদী ‘বিএসসি অনার্স’  ডিগ্রি সম্পন্ন করে ‘এমএসসি’ ডিগ্রি প্রোগ্রামে ভর্তি হয়েছিল তার মধ্য থেকে তিনজন আমার তত্ত্বাবধানে গবেষণা শুরু করে। এই তিনজন ছাত্র সার্বক্ষণিক আমার ‘ন্যানোটেকনোলজি রিসার্চ ল্যাবরেটরি’তে কাজ করতো, গবেষণা ল্যাবের নানা ধরনের এক্সপেরিমেন্টাল সেট আপ তৈরি থেকে শুরু করে সার্বিক উন্নয়নে যথেষ্ট ভূমিকা রাখতো

  • Comment 16

সেন্টার অব এক্সিলেন্স ফর অ্যাডভান্সড রিসার্চ: স্বপ্নের শুরু এবং পরবর্তী ভাবনা

প্রকাশকাল |

আমাদের অর্থনৈতিক অবস্থা গবেষণায় উন্নত এ রকম অনেক দেশের চেয়ে শক্ত ভিতের উপর দাঁড়িয়ে আছে। প্রথম ধাপে দেশের অন্তত বিশটি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশটি সেন্টার অব এক্সিলেন্স গড়ে তুলতে ছয় হাজার কোটি টাকার বেশি খরচ হবে না। দেশের বর্তমান অর্থনৈতিক সাফল্য বিবেচনা করলে এই টাকা তেমন কিছুই না।

  • Comment 16

বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজনীতি চর্চার কোন প্রয়োজন নেই

প্রকাশকাল |

বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো উচ্চতর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কয়েকটি বৈশিষ্ট্য উল্লেখযোগ্য। প্রথমত, এসব প্রতিষ্ঠানে অত্যন্ত জটিল বিষয়ে শিক্ষককে পাঠদান করতে হয়। এজন্য প্রত্যেক বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রছাত্রীদের সুনির্দিষ্ট একটি মানের ভিত্তিতে ভর্তি করা হয়। এই পাঠদান অনেকটা ছাত্রছাত্রীদের প্রণোদনা জোগানোর মতো। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাসরুমে শিক্ষক যা বললেন তাই যথেষ্ট নয়। বরং তিনি আরও যেসব বই বা মুল্যবান তথ্যাদি সংগ্রহ করার কথা… Read more »

  • Comment 47