সিপিবি-র কৈফিয়ত

প্রকাশকাল |

সিপিবি সভাপতির বক্তব্য নতুন প্রশ্ন সামনে এনেছে তার দল সম্পর্কেই। যেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি অপেক্ষায় ছিল কবে বঙ্গবন্ধু মারা যাবেন আর প্রকাশ্যে বাকশালে যোগ দিয়েও গোপনে থাকা পার্টিকে দ্রুত সামনে এনে রাজনীতি করা যাবে।

  • Comment 3

যুুদ্ধাহতের ভাষ্য-৯৫: পলাতক খুনিদের সাজা দিতে না পারলে বঙ্গবন্ধুর আত্মাও শান্তি পাইব না

প্রকাশকাল |

একাত্তরে রাজাকাররাই আমারে রক্তাক্ত করেছিল। অথচ স্বাধীন দেশে আক্তার মোল্লার মতো রাজাকার এখনও বেঁচে আছে। তার কোন বিচার হয় নাই। বরং অনেক প্রভাবশালী হয়েছে। বর্তমান এমপি সাহেব এলাকায় আসলে ওই আক্তার মোল্লার বাড়িতে গিয়াই ওঠেন।

  • Comment 2

বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীকে ফেরত না পাওয়া কূটনৈতিক ব্যর্থতা নয় কি?

প্রকাশকাল |

১৯৮৬ সালে সুইডেনের একজন জনপ্রিয় প্রধানমন্ত্রী ওলোফ পালমেকে আততায়ী গুলি করে হত্যা করেছিল। তিনি কোনও রকম নিরাপত্তাকর্মী ছাড়াই সস্ত্রীক সিনেমা দেখতে গিয়েছিলেন। একজন প্রধানমন্ত্রী কতটা সৎ, সাহসী ও জনগণকে বন্ধু ভাবলে এমন অরক্ষিত অবস্থায় সিনেমা দেখতে যেতে পারেন! একই জাতীয় কাজ বঙ্গবন্ধুও করেছেন। ধানমণ্ডির অরক্ষিত বাসভবনে রাষ্ট্রপতি পরিবারবর্গসহ অবস্থান করেছেন, সকল পরামর্শ উপেক্ষা করে।

  • Comment 2

যুদ্ধাপরাধী ও সন্ত্রাসীকে বাঁচাতে রাজপথে ড. কামাল

প্রকাশকাল |

২০০৯ সালে জাতীয় সংসদ যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করার সিদ্ধান্ত নেয়। সে সময়ে বিএনপির সংসদ সদস্যরা সংসদ বয়কট করেন। দেশের প্রগতিশীল সকল বুদ্ধিজীবী, ছাত্র সমাজ ও সংগঠন এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানায়। ওই সময়ের পত্র-পত্রিকা খুঁজে দেখলে সবাই দেখতে পাবেন ড. কামাল হোসেন এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে কোনও বিবৃতি বা বক্তব্য দেননি।

  • Comment 51