উচ্চশিক্ষায় বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ কাদের জন্য?

প্রকাশকাল |

আমরা তো সারা বিশ্বে ছড়িয়ে আছি। দেশের সরকার কোনও টাকা পয়সা আমাদের পড়াশোনার জন্য খরচ করে না বিধায় আমাদের দেশে ফেরার কোনও দায়বদ্ধতা থাকেনা। যে কারণে দেশে ব্রেইন ড্রেন অব্যাহত রয়েছে।

  • Comment 1

প্রধানমন্ত্রী ফেলোশিপ এবং কিছু কথা

প্রকাশকাল |

শর্তাবলীতে লখিন্দরের বাসর ঘরের মত কিছু ফাঁক-ফোকরও আছে। যেমন, যদি কেউ ডিগ্রি শেষ করে দেশে ফিরে এসে দুই বছর কর্মজীবন অতিবাহিত করতে না চায়, তবে মাত্র পাঁচ লক্ষ টাকায় দফারফা করা যাবে (ধরি, এই টাকার পরিমাণ শিক্ষাছুটিতে থাকাকালীন পৃথকভাবে গৃহীত মুল বেতনের চেয়েও কম!)। এক্ষেত্রে ফেলোশিপ প্রাপ্ত ব্যক্তি সাক্ষীদ্বয়কে মাত্র পাঁচ লক্ষ টাকা দিলেই (যেটা সাক্ষীদ্বয় পরে সরকারকে প্রদান করবেন) মামলা শেষ!

  • Comment 11

বিশ্ববিদ্যালয়ে থিসিস-ননথিসিসের গ্যাড়াকল ভাঙবে কবে?

প্রকাশকাল |

পৃথিবীর সিংহভাগ দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে গবেষণা করা অনেকটা বাধ্যতামূলক করা হলেও কেবল বাংলাদেশে স্নাতকত্তোর পর্যায়ে কোনও প্রকার গবেষণা না করেই সনদ পাওয়ার নজির তৈরি হয়ে আসছে।

  • Comment 9