যুদ্ধ-আলোকচিত্রী আবদুল হামিদ রায়হানের বয়স এখন আটাশি। একাত্তরে হামিদ রায়হানের ছবিগুলোই আমাদের কাছে মুক্তিযুদ্ধে অকাট্য দলিল। শেখ হাসিনা সরকার একাত্তরে অবদানের জন্য বিদেশি সাংবাদিক, আলোকচিত্রী ও ব্যক্তিত্বকে এনে সম্মাননা দিয়েছে। এটিও ভাল উদ্যোগ। কিন্তু দেশের একজন যুদ্ধ-আলোকচিত্রী হিসেবে আব্দুল হামিদ রায়হানকে কেন কোনও জাতীয় পুরস্কার বা সম্মাননা দেওয়া হলো না আমাদের জানা নেই।
  • Comment 3
১৯৭১ সালের ছাব্বিশে মার্চ প্রথম প্রহরে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের প্রত্যক্ষ মুক্তিযুদ্ধ শুরু হওয়ার আগে ৩ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে দেশব্যাপী যে অসহযোগ আন্দোলন শুরু হয় তাতে চট্টগ্রামের বীর জনতা অনন্য ভূমিকা পালন করেন। বিশেষ করে উল্লেখ করতে হয়, পাকিস্তান থেকে অস্ত্র বোঝাই ‘সোয়াত’ জাহাজ থেকে অস্ত্র খালাসে বাধা দিতে গিয়ে কয়েকশত শ্রমিক-জনতা ও বাঙালি সৈন্যের মরণপণ সংগ্রামের কথা।
  • Comment 2
সুবর্ণ জয়ন্তীর এই মাহেন্দ্রক্ষণে রাজধানীর কোনো গুরুত্বপূর্ণ স্থানে  বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু, মহান নেত্রী, ইন্দিরা গান্ধীর একটি ম্যুরাল বা ভাস্কর্য নির্মাণ করা হোক। আমাদের আগামী প্রজন্ম এই মহান নেত্রীর বিষয়ে আগ্রহী হোক, মুক্তিযুদ্ধে তার অসামান্য অবদানের কথা দেশের মানুষ জানুক এবং সে সঙ্গে তার প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করুক।
  • Comment 2
‘বঙ্গবন্ধুর ডাকে শুধু দেশকে স্বাধীন করতেই যুদ্ধে গিয়েছি। নির্যাতিত জাতি থেকে মুক্তি পাব, একটা মুক্ত স্বাধীন দেশের মানুষ হিসেবে বাঁচব– তখন এই চেতনা নিয়েই মুক্তিযুদ্ধে গিয়েছি। কিছু চাওয়া-পাওয়ার আশায় তো মুক্তিযুদ্ধে যাইনি। একাত্তরে আমরা দেশের জন্যই তো মরতে গিয়েছিলাম। বেঁচে আছি এটাই ভাগ্য।’
  • Comment 1