"উনাকে নয়াপাড়া গ্রামে নিয়ে একটা দরজার পাল্লায় শুইয়ে দিই প্রথম। অতঃপর নিয়ে যাই ইন্ডিয়ান আর্মিদের কন্ট্রোল রুমে। কর্নেল তাহের নিজের চিন্তা করছিলেন না। পা দিয়ে রক্ত পড়ছে। তবুও বলছেন, ‘তোরা আমারে রাখ। কামালপুর দখল করতে যা।’ এমন যোদ্ধা আমি দ্বিতীয়টি দেখিনি।"
  • Comment 6
"আমরা তো শিক্ষিত না। আমগো কথা কে শুনবো। এই সরকারকে ভালবাসি। কিন্তু সব সিদ্ধান্ত কেন প্রধানমন্ত্রীকে দিতে হয়? দায়দায়িত্ব তো অন্য মন্ত্রীদের বা সচিবদের আছে। তাহলে বাকীরা কি কাজ করেন? উনি এখনও সঠিক সিদ্ধান্ত দিচ্ছেন। কিন্তু এইভাবে চললে ভবিষ্যতে প্রধানমন্ত্রীকেও বির্তকিত করার সুযোগ তৈরি হবে।"
  • Comment 3
যখন থেকে সনদপত্র নির্ভর মুক্তিযোদ্ধার পরিচয় টেনে নিয়ে সুবিধা বিলানোর উদ্যোগ নেওয়া হলো–তখন থেকে মুক্তিযুদ্ধকে সংকীর্ণ গলির মধ্যে ঠেলে দেওয়া হলো! আর এই কারণে পঁচাত্তর পরবর্তী সময়ে যারা ক্ষমতা দখল ও ক্ষমতা পাকাপোক্ত করার চেষ্টা করেছে–তারাই প্রধানত ‘মুক্তিযোদ্ধার সাইনবোর্ড’ ব্যবহার করে নিজেদের স্বার্থ উদ্ধার করার চেষ্টা করেছে।
  • Comment 3
"কিন্তু তখনও ফায়ার করছি। হঠাৎ অনুভব করলাম ডান কান দিয়ে কী যেন ঢুকে গেছে। সঙ্গে সঙ্গে কানের ভেতরটা ও মাথায় তীব্র যন্ত্রণা শুরু হয়। কানের ভেতরটা কামড়ে ধরে। বুঝে যাই চিনেজোঁক কানে ঢুকে গেছে। যন্ত্রণায় পাগল হয়ে যাচ্ছিলাম। কান দিয়েও রক্ত বেরুচ্ছিল।"
  • Comment 1