Feature Img

sm1কোনও ‘গোলমাল’ (আন্দোলন)-এর সময় ঘরের বাইরে না যেতে মায়েরা বরাবরই সন্তানদের সতর্ক করে দেন। তারপরও দেশ-মাতৃকার টানে ঘরের বাইরে যায় বাংলাদেশের তরুণ-তরুণীরা। ইতিহাসের উল্টো পথে বেশি এগোব না। নব্বই-এর স্বৈরাচার-বিরোধী সংগ্রামে যুবসমাজ আপোসহীনভাবে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ডাকে ঘর থেকে রাস্তায় গেছে।

গত মাসে যে দুটি হরতাল হয়েছে, তার গতানুগতিক মূল্যায়নে না গিয়ে বলতে পারি, সরকারের জন্যে দুটি বড় অঘটন ঘটে গেছে। এক. দেশ পরিচালনায় মহাজোট সরকারের ব্যর্থতায় ক্ষুব্ধ দেশবাসীর মনে বেগম জিয়াকে এক কাপড়ে ৪০ বছরের নিবাস থেকে বের করে দেয়ার ঘটনাটি স্ফুলিঙ্গের মতো দ্রোহ তৈরি করেছে। হরতালের স্বতঃস্ফূর্ততাই এর প্রমাণ। দ্বিতীয়তঃ বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে আরও একটি নজীরবিহীন অধ্যায়ের সূচনা হয়েছে।

এতকাল দেখেছি, হরতাল আহবানকারীরা পিকেটিংয়ের জন্য রাস্তায় নেমেছে, মিছিল করেছে। কিন্তু পুলিশ তখনই লাঠিপেটা শুরু করেছে যখন পিকেটাররা বোমা ফাটিয়েছে, যানবাহনে আগুন ধরাতে চেয়েছে বা এক কথায় সহিংসতার সূত্রপাত যখন ঘটেছে এবং গ্রেফতারও চলেছে। কিন্তু এবার দুটি হরতালের অভিজ্ঞতা হল, পিকেটিং বা মিছিলের আগেই, হরতাল-ডাকা বিএনপির নিরীহ কর্মী রাস্তায় চোখে পড়লেই পুলিশ তাকে টেনে-হিঁচড়ে প্রিজন ভ্যানে তুলেছে। সিলেটে সাবেক এমপিকে কোমরে রশি বেঁধে তোলা হয়েছে। মহিলাদের বুকে পুরুষ পুলিশেরা হাত দিয়ে গ্রেফতার করেছে। বরিশালে এক রাজনৈতিক কর্মী পুলিশের তাড়া খেয়ে নদীতে পড়ে গেছে। পুলিশ তাকে সেখানে থেকে তুলে নিয়ে হাজতে ঢুকিয়েছে।

কুমিল্লার বুড়িচং ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া দুটি থানায় (বাংলাদেশের সর্বত্র) হরতালের কয়েকদিন আগে থেকেই বিএনপি ও জামায়াতের নেতা-কর্মীদের রাস্তায় পর্যন্ত নামতে দেওয়া হয় নি। মায়েরা এসব দেখে আশ্চর্য। তাছাড়া যখন তারা দেখলেন, হরতালের আগের রাতগুলোতে গ্রামে গ্রামে ঢুকে পুলিশ নিরীহ কর্মীদের বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যাচ্ছে, তখন তাদের বুকফাটা কান্না। এমন তো দেখি নি বাংলাদেশে! ওই মায়েরাই এখন সন্তানদের পাঠাবে জুলমবাজ, মানবাধিকার লংঘনকারী সরকারের বিরুদ্ধে রাস্তায় নামতে। অত্যাচারী পুলিশও এক সময় গুটিয়ে যাবে।

দুটি হরতালের রাজনৈতিক গুরুত্ব সেখানেই। বেগম জিয়া এর মাধ্যমে মানুষে-মানুষে, ঘরে-ঘরে ফ্যাসিবাদী সরকারের বিরুদ্ধে তাপ ছড়িয়ে দিতে সক্ষম হয়েছেন। আর বাংলাদেশের জনগণ জুলুমের ব্লাস্ট ফার্নেসে কঠিনভাবে তৈরি হচ্ছেন।

পর্যবেক্ষক মহল বিস্ময়ের সঙ্গে লক্ষ করছেন যে সরকার তরফের সুশীল ছলনায় অনেক সময় প্রতিপক্ষের কেউ কেউ বিভ্রান্ত হয়ে পড়ে। হরতাল আমাদের ক্ষতি করে – এমন জোরদার প্রচারণা হচ্ছে। কিন্তু হরতাল কেন হচ্ছে সে নিয়ে কোন কথা নেই। হরতালের আগে গণগ্রেফতার নিয়ে সামান্য হল্লাও নেই সুশীল সমাজে। বেগম জিয়া হরতাল ডেকে তো সরকারের ফ্যাসিবাদী চরিত্রকে খোলতাই করছেন আর শেখ হাসিনাও সেই ফাঁদে পা দিচ্ছেন। ক্রমাগত অসহায়ত্বে ঠেলে দেওয়া জনগণের পক্ষে বিরোধী দল তো হরতাল করবেই। আর হরতালকে কুটির শিল্প তো বর্তমান সরকারই বানাচ্ছে। হরতাল-ডাক-দেয়া বিরোধী দলকে ঘরে বসিয়ে রাখা হবে – তাও সরকারের মর্জিমাফিক। ফ্যাসিবাদের পক্ষে গান গাওয়া বুদ্ধিজীবী হাবার্ট মারকিউয তিরিশের দশকে কতকগুলো শব্দ চালু করেছিলেন। যেমন, defensive violence (আত্মরক্ষামূলক সহিংসতা) repressive tolerance (নির্যাতনমূলক সহিংতা)। সরকারকে পরামর্শদাতারা শান্তিপূর্ণ হরতাল ঠেকাতে সহিংস প্রতিরক্ষার কথা বলছেন এবং বাস্তবায়নও করাচ্ছেন। সর্বোচ্চ আদালতের রায় চূড়ান্ত হওয়া বা বেগম জিয়ার স্বেচ্ছায় বাড়ি ছাড়ার আগেই তাঁকে বলপূর্বক বের করে দেওয়ার দেশীয় নাম নির্যাতন, বিদেশী নাম সহিষ্ণুতা। ইটালীর মুসোলিনী বলত “Everything in the state. nothing outside the state.” রাষ্ট্রীয় রাজনীতিকে একমুখী করা ফ্যাসিবাদের ধর্ম। এতে করে “all of society’s institutions are wrapped around the state like sticks around the fascist blade.”

দ্বিতীয় প্রচারণা হচ্ছে বিএনপি কেন একটি বাড়ি নিয়ে রাজনীতি করবে? এসব শুনে বিএনপি’র শুভাকাঙ্ক্ষীরাও এ দাবিটাকে হরতালের শেষ কারণ বলতে চায়। মহাজোট সরকারের মন্ত্রীসভা রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিয়ে শহীদ মঈনুল রোডের ৬ নম্বর বাড়ির লীজ বাতিল করেছে; প্রধানমন্ত্রীর সার্বক্ষণিক প্রচারণাই ছিল ওই বাড়ির বিরুদ্ধে। সরকারই বাড়িটিকে রাজনৈতিক ইস্যু বানিয়েছে, এ নিয়ে বিএনপি রাজনীতি করবে না কেন? এই সরকারের আমলে প্রচুর বাড়ি ও জমি বেদখল হয়েছে। যোগ করলে আরও বড় আন্দোলন দাঁড়ায়। বেগম জিয়াকে উচ্ছেদ এবং অপমানের কারণেই বাংলাদেশের মানুষ ১৫ দিনের ব্যবধানে দু’টি হরতাল করল। এই সেন্টিমেন্টকে রাজনীতিতে অবহেলার সুযোগ কম। এই রায়কে বুক ফুলিয়ে বলতে অসুবিধা কোথায়?

হরতালে কয়টা ট্রেন চলল, কতো প্লেন উড়ল, পক্ষ-বিপক্ষের কেমন বড় মিছিল হল — সে সবের মূল্যায়ন এখন নিরর্থক। বর্তমান রাজনীতির ঝোঁক বুঝতে ঘরে ঘরে কান পাতুন — আন্দোলনের দামামা ক্ষীণ নয়। জনমত মানে আকাশ ফাটানো মেঘের গর্জন নয়। বরং মাটিতে মিশে থাকা শিশির বিন্দু।

জাতীয় দৈনিকগুলোর সম্পাদকদের সঙ্গে দুই নেত্রীর সংলাপের রেওয়াজ বহুদিন ধরে চলে আসছে। একজন সম্পাদক বলেন, বিরোধী নেত্রী বেগম জিয়াকে সংসদে যেতে বা হরতাল না দিতে বলা যায়। আরেক নেত্রী বিরোধী দলে থাকলে তাঁকে তো সংসদে যেতে অনুরোধ করতেই পরিবেশ পাই না।

তবে এখন হরতাল বা আন্দোলন বন্ধ করতে পারেন একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সরকারের অগণতান্ত্রিক এবং ফ্যাসিবাদী কার্যকলাপই হরতাল ডেকে আনছে।

ফেসবুক লিংক । মতামত-বিশ্লেষণ

৩৮ Responses -- “হরতালের উৎসে সরকার, সমাধানেও”

  1. basir jamal

    হরতাল নিয়ে লেখাটি তৈরির জন্য বিশিষ্ট সাংবাদিক শওকত মাহমুদকে ধন্যবাদ জানাই। লেখাটি যেমন যুক্তিপূর্ন তেমনি সময়োপযোগী। এটা বলার অপেক্ষা রাখে না যে, হরতাল কারও কাম্য হতে পারেনা। রাজনৈতিক কর্মসূচিহগুলোর মধ্যে একমাত্র হরতালই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকারক। তবে সরকার যখন কোনো কথা শুনতে চায় না, নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়, তখন হরতাল ছাড়া বিকল্প কোনো কর্মসূচি থাকতে পারে না। আদালতে নিষ্পত্তি হওয়ার আগেই খালেদা জিয়াকে তার বৈধ বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করে দেয়া অন্যায়। এমতাবস্থায় হরতাল দেয়া ছাড়া বেরোধী দলের বিকল্প কোনো পথ ছিল না।

    Reply
  2. Satyabadi

    This is the person who wrote in 2002 in ‘Ekhon Somoy’ of Ataus Samad when BNP created havoc by torturing its political oponents and the minority Hindus after 2001 general election, its magnitude only comparable to the Havoc cteated by Pakistani Army in 1971 that, “this time around Madam is controlling the opposition with determined heavy hand, unlike the soft attutude of 1991-96 that brought her government down and this leadership will not give any opportunity for the opposition to shake the government. If she continues like this the opposition will have no chance in the next general election”. However, only history can tell how the people of the country judged her rule on December 29, 2008. So what, this great journalist(!) has been rewared by his Madam as her Adviser. Only a jewel identifies another jewel!

    Reply
  3. Sayed Foysal Ahmed

    কলামটি পক্ষপাতদুষ্ট বিবেচনায় ছাপানোর অযোগ্য বলে বিবেচিত হওয়া উচিত ছিল। শওকত মাহমুদ সাংবাদিক না রাজনীতিবিদ সেটা পরিস্কার হওয়া উচিত। বিডি নিউজ এই ধরনের কলাম প্রকাশ করার আগে আরও সচেতন হওয়া উচিত বলে আমি মনে করছি। দলীয় পক্ষপাতদুষ্ট সাংবাদিকদের লেখা bdnews24 এ কিভাবে ছাপা হলো বুঝতে পারছি না।

    Reply
  4. prince

    ইটকেল মারলে পাটকেল খেতে হই এইটাই প্রকৃতির নিয়ম , হাসিনার বাড়ি না গেলেও খালেদার বাড়ি যাওয়ার মতো হাসিনার অনেক কিসুই হবে. এইটাই আমাদের রাজনীতির এখন নতুন কালচার শুরু হযে গেল.

    Reply
  5. IDRISH

    Thanks for good writting.

    AL and BNP just oppsite of a coin,What BNP did while in power,now AL doing same.May be you have forgotten to write BNP”s torture to AL during their regime.When you write be honest,otherwise you will not be appreciated.# 6 moinul road house(a person’s home) cannot be a great deal of politics in a poor country like us instead of economic development,corruption elimination,electricty/water/gas/traffic jam etc…..

    Please write something constructive rather than home politics.

    Reply
  6. ali

    Mr.Shawkat you can say this hartal is for the price of comodity,electricity etc etc but people will not beleive this. We know very well this hartal for the personal interest that means Khaledas house and his famous sons.How you can say 15 crore people have supported this hartal? You poor fellow carry on .You have good chances.

    Reply
  7. Shahed

    Mr. Sawkat Mahmud,
    Well done. Keep it up. Now Bangladesh Suprem court become Awami Supreem court league. People of Bangladesh going through very tough time. Chief Justice Khairul & other Appealate division judges are totally League supporter. If some body stay in one place more than 12 years nobody can disturb him but in Khaleda Zia’s case how high court division give such judgement????? Justice Khairul is afraid of ‘logi, boitha’. High court give judgement regarding remand but Govt never give any attention about remand judgement.

    Reply
  8. Shahed Sadruddin

    Dear shawkat Mahmud,
    Besh likchen idaning – aboshsho ey shob apnar kach thekey awprottashito noy.
    Khaledar daak ey shawkol torun nobboi er shoirachar birodhi aandolon ey jhapiey poreychilo – ei kotha apni kothai pelen? Tar shathey ki onnanno neta netrir daak chilona? Twisting koren keno? Bekti puja thaman – nirmoho vabey itihash tuley dhortey shikhun.

    Khaleda Zia k bari thekey aain menei tola hoeychey. Ey kotha apnio bojhen, onar Moudud gong…o bojhey —- j jonnoi Moudud raai hawbar aagey boleychilo, ” Khaleda Zia -r barir nishpotti rajpotheyi hobey”. Hortal er dhanda apnader tawkhon thekeyi. shobi plan motoi koreychen apnara. Kintu public k eto ta boka vabbenna. Tara bujhtey perechey apnara kon kaidai aagachchen.

    Bolchen Hortal shawfol hoeychey ittadi. Bolunto ey desh ey kondin hortal shawfol hoyni? Public er koyta matha j, apnader moto dol gulor daaka hortal awmanno korey? Ferdous Koreshi awthoba Nilu gocher lokjon daakleyo hortal hobey — hoyto apnader hortal er moto awto bus purbena, awto grehtar hobena — ei r ki! Bepar holo apnara (Awami Leage , BNP ittadi)hortal kawran, r amra nirupai public — tai kori. Eto bojhen, eita bojhen na?

    Shawrker k shawfol bawlar kono karon dekhina. Kintu kono ki upai rekheychen, birodhi dol hishab ey apnader k number debar? Eid er dui din aagey hortal ta dilen bibekhin er moto – shadharon manush er proti ei holo apnader daittobodh er nomuna!!

    R ek ta onurodh bdnews24 k — doya korey ei regular pathok er comment ey churi chalaben na. Pawchondo na holey bin ey feley din. Awshubidha nei – apnader shongeyi achi, thakbo. Shuvechcha.

    Reply
  9. sweety

    হরতালা কি বিএনপি আহবান করেছে না আওয়ামী লীগ আহবান করেছে তা হরতাল দেখে বুঝা যায়নি। কারন যেভাবে আওয়ামী ক্যাডাররা রাজপখে মহড়া দিয়েছিল তাতে মনে হয়েছে আওয়ামী লীগ বিরোধী দলে।রাস্তায় ছাত্রদল যুবদল কমীদের দেখলে যে ভাবে পুলিশ আক্মমন করেছে তা ভাশায় প্রকাশ করার মত না। আমরা কোন সভ্য সমাজে বাস করি যেখানে শান্তিপূর্ন আন্দোলন করার পরিবেশ নেই।আওয়ামী লীগ কি দেশটাকে বাপের সম্পদ মনে করে?

    Reply
  10. junior

    Dear bdnews24.com,

    Why you publish article by Shawkat Mahmud.
    He is too bad writer. He doesn’t have any sense in writing.

    All he says is lie. He is very bad person.
    How can he become a journalist!!!!!!!!!

    Reply
  11. Rana

    শওকত ভাই আপনার থেকে আরও ভাল লেখা আশা করি কারণ এই জুলুমবাজ সরকারকে উঃখাত করতে হলে রাজপতে যেমন আন্দেলন দরকার তেমনি কলমের ভাষাও দরকার।আমার এই অল্প বয়সে এই হরতালের মত হরতাল আর দেখিণি।আগে দেখেছি যারা হরতাল আহবান করে তারা রাজপখে থাকে আর এই বার দেখলাম আওয়ামী ক্যাডাররা রাজপখ দখল করে আছে।যা বাংলাদেশের ইতিহাসে বিরল।একদিকে পুলিশি আক্মমন অন্যদিকে ছাত্রলীগ যুবলীগ এর হামলা।বাংলার জনগন এই সব হামলাল জবাব আগামীতে সুদ আসলে হিসাব দিবে।

    Reply
  12. Sabbir Ahmed

    Very sad to see such type of yellow journalism, Hope bdnews24 will maintain its quality by avoiding such type rubbish. Mr. Shawkat please open your mind and write in a true manner. Zia family lost their credibilty. Bangladesh people will uproot these corrupted families from the plitics. Inshallah.

    Reply
  13. Mahabub

    শওকত মাহমুদ মিথ্যার বেসাতি সাজিয়ে নিয়েছেন। সরকারের সব সিদ্ধান্ত রাজনৈতিকই হয়। কারন তারা রাজনৈতিক কমিটমেন্ট দিয়ে নির্বাচন করেন এবং নির্বাচিত হয়। সরকার চালান। সেই রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত যে সঠিক এবং আইনসংগত ছিলো সেটা খালেদা জিয়া হাইকোর্টে রিট/আপিল করে তার প্রমান পেয়েছেন। বিচার বিভাগে এই শুনানী/রায় নিয়ে যে নাটক/পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিলো তা টিএইচ খাম, মওদুদ, রফিকুল হকরাই করেছেন। পরাজিত সর্বদা হতাশগ্রস্তই হয়, কারন নিজের অবৈধ স্বার্থহানী হয়। কিণ্তু শওকত মাহমুদরা একটু বেশি হয়েছেন, এবং বরাবরের মত সবকিছুতেই রাজনৈতিক সুবিধা আদায় করতে চান। যে কতটুকু সুবিধা আদায় করা যায়। কিণ্তু অতিচালাকের গলায় দড়ি।

    Reply
    • Oindrila

      I believed that he was a columnist but have started to think that he is politician and top-brass BNP leader. Therefore, it is impossible to get impartial and neutral views from him…

      Reply
  14. Male

    He wrote that 15 crore Bangladeshi supports last 2 Hortals. Its 100% wrong. He forgot that Khaleda got only few supports in last election.

    I dont understand how this type of writer still writing such a lie.

    Reply
    • Monu

      আমার মনে হয় শুধুমাত্র আ.লীগ নেতাদের লেখা ছাপা উচিত,বিশেষ করে আইন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট কামরুল ইসলামের বক্তৃতা ছাপা উচিত!!!

      Reply
  15. MD

    Hortal is Bad for our county no matter what is the issue. BAL and BNP is keep doing it because ppl like you exist in our country. do something productive.
    BDNEWS24, why you publish this article?

    Reply
  16. Md Musa

    শওকত মাহমুদ, আপনি খালেদাকে তার কেন্টনমেন্টের বাসা থেকে উচ্ছেদ করলে প্রধানমন্ত্রি শেখ হাসিনার হাত গুড়িয়ে দেবেন বলে উদ্ধত আস্ফালন করেছিলেন। এবিষয়ে আপনার এখনকার বক্তব্য শুনতে চাই। আপনাদের পত্রিকাতে যে মহিলা পুলিশের ছবি এডিটিং করে মহিলাদের বুকে হাত দেয়া পুরুষ পুলিশ বানিয়ে ছাপানোর ষড়যন্ত্রও ফাস হয়ে গেছে। আপনারা যেভাবে হরতলের আগের দিনগুলো থেকেই মানুষ পুড়িয়ে মারা ও গাড়ি পোড়ানোর সন্ত্রাস করছেন, সেক্ষেত্রে আপনাদের দলের কর্মিদের আগেভাগে গ্রেফতার করা জাস্টিফাইড। একটি নষ্ট পরিবারের জন্য আর কত অপরাজনীতি করবেন।

    Reply
    • Mahabub

      তিনি রাজনীতি করতেই পারেন এবং সপক্ষে লিখতে পারেন সমস্যা নেই কিন্তু মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে যা তা লিখতে পারেন না। উনারা গোয়েবলসীয় ধারনায় বিশ্বাসী।

      Reply
  17. WOW_BNP

    Dear Showkot Mahmud,

    I do see you’re trying to relate this hartaal with the root of bangladesh history. You and BNP know very well that this hartal have started on the basis of the eviction of Begum Zia’s army cantonment residence which is not her own anyways. You are comparing this issue to “Desh-Matrika” ?? You didn’t bother to mention how many cars(not yours and your ppl of course) had been burned during that so called hartal. Where were you when BNP let the police attack on the AL’s pioneer leaders violently when Zia was on power. Where was your so called term “tolerance”.

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না। প্রতিক্রিয়া লেখার সময় লক্ষ্য রাখুন--

  • ১. স্বনামে বাংলায় প্রতিক্রিয়া লিখুন।
  • ২. ইংরেজিতে প্রতিক্রিয়া বা রোমান হরফে লেখা বাংলা প্রতিক্রিয়া গৃহীত হবে না।
  • ৩. প্রতিক্রিয়ায় ব্যক্তিগত আক্রমণ গৃহীত হবে না।

দরকারি ঘর গুলো চিহ্নিত করা হয়েছে—